গ্রাম্য সালিশে থেকে বের হয়ে কৃষকের আত্মহত্যা!

কুলিয়ারচর প্রতিনিধি

কিশোরগঞ্জ জেলার কুলিয়ারচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে আয়োজিত গ্রাম্য সালিশ থেকে বের হয়ে ক্ষোভে-দু:খে-অভিমানে আত্মহত্যা করলেন আবু তাহের (৪৫) নামে এক কৃষক।

আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া-আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের বরচারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় চাঞ্চল্য ও তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। কৃষক আবু তাহের  বরচারা গ্রামের শমসের আলীর বড় ছেলে।

জানা যায়, আবু তাহেরের বাবা শমসের আলীর সাথে চাচা জাহাজ মিয়ার দীর্ঘ দিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিলো।

এসব বিরোধ মীমাংসায় অসংখ্য বার গ্রাম্য সালিশ হলেও  বিবাদী জাহাজ মিয়া প্রতিবারই সালিশি দরবার  বর্জন করে আসছিলেন। দীর্ঘদিন যাবৎ আর্থিক সমস্যার কারণে জায়গা বিক্রির চেষ্টা করছিলেন আবু তাহের। কিন্তু;  জমি সংক্রান্ত সমস্যা সমাধান না হওয়ায়, আর্থিক সমস্যা সমাধানে জমি বিক্রি করতে পারছিলো না।

এমন ক্ষোভে গ্রাম্য সালিশ থেকে বের হয়ে, বাবা শবজের আলীকে ফোন করে বলেন, জায়গায় সমস্যা সমাধান হবে আমি মরার পর। এর কয়েক মিনিট পরের শুনা যায় আবু তাহের তাদের লটকন বাগানে ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে।

এই ঘটনায় কুলিয়ারচর থানার ওসি তদন্ত মো. মিজানুর রহমান ও ভৈরব-কুলিয়ারচর এএসপি সার্কেল রেজওয়ান দিপু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এই রিপোর্ট লেখা  পর্যন্ত লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণের প্রস্তুতি নিচ্ছিলো পুলিশ।

কুলিয়ারচর থানার ওসি এ কে এম সুলতান মাহমুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।